1. Eskander211@gmail.com : MEskander :
  2. rashed.2009.ctg@gmail.com : চাটগাঁইয়া খবর : চাটগাঁইয়া খবর
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন

এক গাভীর দুই দাবীদার,প্রকৃত মালিকের কাছে হস্তান্তর, উৎসুখ জনতার ভীড়–চাটগাঁইয়া খবর

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২৪ আগস্ট, ২০২০
  • ১৯৩ Time View


এসএম রাশেদ,চন্দনাইশ


এক গাভী নিয়ে দুই মালিকানা দাবীদারের ঘটনার অবশেষে অবসান ঘটেছে প্রকৃত মালিকের কাছে আজ ২৪ আগষ্ট বিকাল সাড়ে ৩টায় গাভীটি হস্তান্তর করেছে দোহাজারী তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাতকানিয়া পুরানগড় নয়াহাট কালীনগর ও দোহাজারী পৌরসভার কিল্লা পাড়া এলাকার লোকজনের মধ্যে গত ২দিন ধরে এক রহস্য সৃষ্টি হয়েছে। প্রকৃত মালিকের কাছে গাভীটি হস্তান্তরের সময় সাতকানিয়ার পুরানগড় ও দোহাজারী পৌরসভার শত শত উৎসুখ জনতার মিলন মেলা ঘটে।


জানা যায়, গত ৬ জুলাই পূর্ব দোহাজারী এলাকার আলী হোসেনের ১টি গাভী, দোহাজারী কিল্লাপাড়ার নুরুল আলম বাছনের ১টি গাভী,১টি বাছুর ওই এলাকার নুরুল ইসলামের ২টি গরু চুরি হয়ে যায়। ওই ঘটনায় দোহাজারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে একটি অভিযোগও করা হয়েছিল। ২৩ আগস্ট বিকালে সাতকানিয়া উপজেলার পুরানগড় ইউনিয়নের ৪,৫,৬নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার মমতাজ বেগমের পিতা ইছহাক মিয়া তার পালিত গাভীটি প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দিলে ষাড়ের মাধ্যমে প্রজনন দেওয়ার জন্য গাভীটি দোহাজারী পৌরসভার হাড়ি পাড়া প্রদীপের প্রাকৃতিক প্রজননে নিয়ে যাওয়ার পথে দোহাজারী কিল্লা পাড়া এলাকায় আসলে চায়ের দোকানে বসে থাকা দোহাজারী কিল্লা পাড়ার মৃত সাচি মিয়ার পুত্র নুরুল আলম প্রকাশ বাছন ওই গাভীটি তার চুরি হওয়া গাভীর মতন লাগে বলে দৌড়ে এসে ওই গাভীটি আটকে পেলে।

এতে উভয়ের মধ্যে হট্টগোল লেগে যায়। পরে তাদের কথা কাটাকাটি হওয়ার এক পর্যায়ে স্থানীয়রা দোহাজারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে খবর দিলে পুলিশ গাভীটি নিয়ে তদন্ত কেন্দ্রের নিয়ে আসে। পরে রাতে দোহাজারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ উভয় পক্ষ লোকজনের মাধ্যমে যাচাই বাচাই করেন। পরে তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ (ইন্সেপেক্টর তদন্ত) আবদুল হালিম দু’পক্ষই ওই গাভীটি দাবী করায় উভয় পক্ষের লোকজন নিয়ে সিন্ধান্ত হয় ওই গাভীটি চুরি হয়ে যাওয়া নুরুল আলম প্রকাশ বাছুনের বাড়ীর ৫’শ গজ দুরে ছেড়ে দেওয়া হবে যদি বাছনের চুরি হওয়া গাভী হয় তাহলে তার বাড়ীতে চলে যাবে। তখন উভয় পক্ষ এ প্রস্তাবে রাজী হয়।

আজ ২৪ জুলাই বিকাল সাড়ে ৩ টায় দোহাজারী তদন্ত কেন্দ্রের এসআই জাকের হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ও উভয় পক্ষের লোকজনকে নিয়ে গাভীটি নুরুল আলম প্রকাশ বাছুনের বাড়ীর ৫’শ গজ দুরে ছেড়ে দেওয়া হয়। গাড়ীটি নুরুল আলম প্রকাশ বাছুনের বাড়ীতে না ঢুকে লালুটিয়া পুরানগড়ের ওইদিকে চলে গেলে তখন গাভীটি সাতকানিয়ার নয়াহাট কালীনগর এলাকার মৃত আলতাফ মিয়ার পুত্র ইছহাকের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পরে এ সিন্ধান্ত উভয় পক্ষ মেনে নেয়। এধরণের দৃশ্য দেখার জন্য সাতকানিয়ার পুরানগড় ও দোহাজারীসহ বিভিন্ন এলাকার শত শত উৎসুক জনতার মিলন মেলা ঘটে।

দোহাজারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ (ইন্সেপেক্টর তদন্ত) আবদুল হালিম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © 2017 chatgaiyakhobor.Com