1. Eskander211@gmail.com : MEskander :
  2. rashed.2009.ctg@gmail.com : চাটগাঁইয়া খবর : চাটগাঁইয়া খবর
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৮:২৬ পূর্বাহ্ন

চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে এটিএম পেয়ারুল মনোনীত।। “ত্যাগের মূল্যায়ন পাওয়ায় ফটিকছড়িজুড়ে আনন্দ-উচ্ছ্বাস”

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৫০ Time View

রফিকুল আলম।।

এটিএম পেয়ারুল ইসলাম ১৯৯৮-১৯৯১ সালে ফটিকছড়ি উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান হওয়ার পর এবার জেলা পরিষদের চেয়ার অপেক্ষা করছে তাঁর জন্য। ১৯৯১ থেকে এখন পর্যন্ত ৩০ বছর অতিবাহিত হলো হলেও জনপ্রতিনিধির চেয়ার ভাগ্যে জুটেনি পেয়ারুল ইসলামের। তিনি আওয়ামীলীগের মাঠে থাকলেও সেভাবে মূল্যায়ন করেনি দলটি। তবে, ২০০৮ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মহাজোট থেকে মনোনয়ন দেয়া হয় তাঁকে। কিন্তু বিএনপির হেভিওয়েট প্রার্থী সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর কাছে সামান্য ভোটে পরাজিত হন এটিএম পেয়ারুল। ফলে দীর্ঘদিন মন খারাপ থাকলেও এবার হাসি ফুঠেছে এটিএম পেয়ারুলের মুখে।
জানা যায়, দশম ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চাইলেও মহাজোট থেকে তরিকতের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর ভান্ডারীকে নৌকা দেয় আওয়ামীলীগ।

তবে শেষ পর্যন্ত চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি এটিএম পেয়ারুল ইসলাম।
বিষয়টি তিনিই নিশ্চিত করে তিনি বলেন, আমি আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া জ্ঞাপন করছি। ঢাকা থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে আমার মনোনয়ন।কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সহ সবাইকে।
এ টি এম পেয়ারুল ইসলাম চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার মরছম আবুল ফজল ও মরহুমা আমেনা বেগমের পুত্র।
৬৩ বছর বয়সী এটিএম পেয়ারুল ইসলাম ১৯৫৯ সালের ২৫ ডিসেম্বর ফটিকছড়ির নানুপুর ইউনিয়নের কিপাইতনগর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। স্ত্রী মিসেস জান্নাতুল ফেরদৌস লীনা। তিনি দুই সন্তানের জনক। ১৯৭৪ সালে ছাত্রলীগে যোগদানের মাধ্যমে রাজনৈতিক জীবন শুরু করেন পেয়ারুল ইসলাম । মাইজভান্ডার আহমদিয়া হাই স্কুল এর নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক থেকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ফটিকছড়ি উপজেলা সাধারণ সম্পাদক ১৯৭৮-১৯৭৯ইং, ১৯৭৯-১৯৮০ সালে নাজিরহাট ছাত্র সংসদের নির্বাচিত ভি.পি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপতি (১৯৮০-১৯৮২), বাংলাদেশ ল স্টুডেন্ট ফেডারেশন এর কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি (১৯৮৬-১৯৮৮), বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির গ্রন্থণা ও প্রকাশনা সম্পাদক (১৯৮৭-১৯৯০ইং, ” ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ ” ঢাকার কেন্দ্রীয় নেতা ১৯৮৪-১৯৯০ইং, ফটিকছড়ি উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান ১৯৯৮-১৯৯১ইং, উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম আহবায়ক ১৯৯১ ইং, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ফটিকছড়ি উপজেলার সাধারণ সম্পাদক ১৯৯৩-১৯৯৬ইং, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি’র সদস্য ১৯৯৪-১৯৯৬ইং সহ দলের বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেন এই নেতা।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © 2017 chatgaiyakhobor.Com