1. Eskander211@gmail.com : MEskander :
  2. rashed.2009.ctg@gmail.com : চাটগাঁইয়া খবর : চাটগাঁইয়া খবর
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৯:৩৫ পূর্বাহ্ন

ধোপাছড়িবাসীর ভাগ্যে উন্নয়নের সুফল সইচে না

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১ জুন, ২০২১
  • ২৮৮ Time View


চন্দনাইশ প্রতিনিধি


চন্দনাইশ উপজেলার দূর্গম ধোপাছড়ি ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়ন হলেও কিছু ক্ষেত্রে ধোপাছড়িরবাসীর ভাগ্যে সে উন্নয়ন টেকসই হচ্ছে না। ফলে দূর্ভোগ ও চরম ভোগান্তিরও শেষ হচ্ছে না তাদের। ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার অধিনে ২০১৭ সালে চামাছড়ি খালের উপর দৈঘ্য ৬০ ফুট সেতুটির ৫৭ লক্ষ টাকা ব্যায়ে নির্মিত হওয়ার ২মাসের মধ্যে উদ্বোধনের আগে পাহাড়ী ঢলে সেতুটি দেবে যায়। পরবর্তীতে আজোও ওই সেতু আর পূণঃ নির্মাণ হয়নি। লক্ষ লক্ষ টাকা ব্যায়ে সেতুটি আর কোন কাজে আসেনি। ফলে বান্দরবানের সাথে ধোপাছড়িরবাসীর যোগাযোগ অসম্পন্ন রয়ে যায়। অন্যদিকে ২০১৪-১৫ অর্থ বছরে নির্মিত ধোপাছড়ি শান্তিবাজার মংলা মুখ সড়কের আ্যড়া ঘোনার ছড়ার উপর কালভার্টটি ১ জুন সকাল ১১টায় বৃষ্টির পাহাড়ী ঢলের পানির স্রোতে যোগাযোগ বিছিন্ন হয়ে প্রায় ৮/১০ গ্রামের ৪/৫ হাজার মানুষের একমাত্র যাত্রায়তপথ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাদের উৎপাদিত বিভিন্ন সবজি ও নিত্য প্রয়োজনীয় পন্য আনা নেওয়া এখন দূবির্ষহ হয়ে পড়েছে। ফলে দূর্ভোগে পড়েছে এখানকার হাজার হাজার মানুষ।


জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল থেকে ভারী বর্ষণের ফলে পাহাড়ী ঢলে ধোপাছড়ি থেকে শান্তিরবাজার মংলারমুখ সড়কের অ্যাডা ঘোনা ছড়ার উপর কালভার্টটি ভেঙ্গে গিয়ে উভয়পাশের যোগাযোগ বিছিন্ন হয়ে পড়েছে। ফলে ধোপাছড়িসহ বিভিন্ন এলাকায় যাওয়ার জন্য একমাত্র মাধ্যম সড়কটি বিছিন্ন থাকায় মংলারমুখ, কৈয়াং পাড়া, নেবুজিরি ত্রিপুরা পাড়া,তংচঞ্চাপাড়া, চাকমা পাড়াসহ ৮/১০ গ্রামের বিভিন্ন সম্প্রদায়ের হাজার হাজার মানুষের দূর্ভোগ চরমে উঠেছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদীন বলেন, ২০১৪-১৫ অর্থ বছরে নির্মিত হাওয়া উক্ত কালভার্টটি পাহাড়ী ঢলে বৃষ্টির পানিতে ভেঙ্গে গেছে। অজন্দ্র ত্রিপুরা,যত্রিশ ত্রিপুরা, সুজন ত্রিপুরা, রাশিয়া ত্রিপুরা বলেন, এসড়কটি বিছিন্ন থাকার ফলে তাদের উৎপাদিত বিভিন্ন ধরণের সবজি বাজারজাত করতে না পারলে ক্ষেতের সবজি খেতে নষ্ট হয়ে যাবে।

ফলে পরিবারে আর্থিক দুরঅবস্থা সৃষ্টি হবে। আহমদ শফি বলেন, সকালে ধোপাছড়ি বাজারে যাওয়ার সময় কালভার্টটি ভাল ছিল, কাজ শেষে দুপুরে বাড়ীর জন্য চাউলের বস্তা নিয়ে ফেরার পথে আর সড়কটি বিছিন্ন হওয়ায় সে চাউলের বস্তা আবার দোকানে ফিরে নিয়ে গেছেন এবং ৩ কেজি চাউল হাতে নিয়ে বাড়ী ফিরেছেন। আবদুর রশিদ,জামাল, জাকের জানান, ধোপাছড়ির শতকরা ৯৮% মানুষ কৃষক। কলা, পেঁেপ,লেবু,আদা,বেগুনসহ বিভিন্ন সবজি খেতের উপর নির্ভরশীল তাদের পরিবার। কিন্তু এখানে হাজার হাজার মানুষের একমাত্র সড়কপথটি বিছিন্ন হয়ে পড়ায় তারা এখন চিন্তাগ্রস্থ হয়ে পড়েছে। কিভাবে তাদের সবজি ধোপাছড়ি বাজারসহ অন্যান্য বাজারে নিয়ে যাবে ও বিক্রি করবে। ফলে তাদের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশংঙ্খা করছেন তারা। অতিশ্রীঘ্রই উক্ত সড়কের কালভার্টটি মেরামতের জন্য চট্টগ্রাম-১৪ আসনের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম চৌধুরীসহ উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার চৌধুরীর সু-দৃষ্টি কামনা করছেন ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাবাসী।


অন্যদিকে ধোপাছড়ির সচেতন মহল মনে করেন, চন্দনাইশে সবচেয়ে দূর্গম ও উন্নয়ন বঞ্চিত এলাকা। কিন্তু ধোপাছড়িবাসী যে উন্নয়ন হচ্ছে তারও সঠিক তদাকরির কারণে তার সুফল পাচ্ছে না । ধোপাছড়ি ইউনিয়নবাসী আবেদন-নিবেদন ও অনেক দাবীর প্রেক্ষিতে ২০১৭ সালে চামাছড়ি খালের উপর দৈঘ্য ৬০ ফুট সেতুটির ৫৭ লক্ষ টাকা ব্যায়ে নির্মিত হলেও উদ্বোধনের আগে ব্রীজটি পাহাড়ী ঢলে সেতুটি দেবে যায়। যোগাযোগের অনুপোযুগী হয়ে পড়ে। অদ্যবধি এখনোও ওই সেতুটি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে এবং আর অন্য কোন সেতু নিমার্ণের আর উদ্যোগ বা বাস্তবায়ন এখনোও হয়নি। ধোপাছড়িবাসী মনে করেন দূর্গম এলাকা হাওয়া সত্বেও ধোপাছড়ি যে উন্নয়ন হয়েছে কিন্তু তার সঠিক তদারকির কারণে তাদের সে কাঙ্খিত উন্নয়নের সুফল ধোপাছড়িবাসী পেয়েও তাদের ভাগ্যে সে উন্নয়ন সইচে না তাদের।


এদিকে এব্যাপারে চন্দনাইশ উপজেলা প্রকৌশলী রেজাউন নবী বলেন, কালভার্টটি ভেঙ্গে যাওয়ার বিষয়টি শুনেছি। সরেজমিন পরিদর্শন করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নেওয়া হবে।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © 2017 chatgaiyakhobor.Com