1. Eskander211@gmail.com : MEskander :
  2. rashed.2009.ctg@gmail.com : চাটগাঁইয়া খবর : চাটগাঁইয়া খবর
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:৩০ পূর্বাহ্ন

পার্বত্য বান্দরবানে পর্যটন কেন্দ্র প্রান্তিকলেক শাক্যমিত্র অরণ্য বৌদ্ধ বিহারে কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ৬ নভেম্বর, ২০২১
  • ২৭৮ Time View

ইসমাইল হোসেন সোহাগ, বিশেষ প্রতিনিধি

বাংলাদেশে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী ধর্মীয় উৎসব হচ্ছে দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দানোৎসব।পঞ্চশীল প্রার্থনা সহ ধর্মীয় আচার পালনের মধ্য দিয়ে বান্দরবানের সদর উপজেলার সুয়ালক ইউনিয়নের পর্যটন কেন্দ্র প্রান্তিকলেক সংলগ্নে শাক্যমিত্র অরণ্য বৌদ্ধ বিহার শান্তমিত্র বৌদ্ধ ম্রো অনাথ আশ্রম ও বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্রে দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

০৪ নভেম্বর”২০২১ইং বৃহস্পতিবারে শান্তমিত্র বৌদ্ধ ম্রো অনাথ আশ্রম ও বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্রের উদ্যোগে ২য় বারের মতো সারাদিন ব্যাপী এ দানোত্তম শুভ কঠিন চীবের দানোৎসব অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন শাক্যমিত্র অরণ্য বৌদ্ধ বিহার শান্তমিত্র বৌদ্ধ ম্রো অনাথ আশ্রম ও বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্র-এর প্রতিষ্ঠাতা মহা পরিচালক, সুদেশক, তরুণ সাংঘিক ব্যক্তিত্ব ভদন্ত বি. শান্তমিত্র ভিক্ষু মহোদয়।

ধর্মসভা অনুষ্ঠানে সাতকানিয়া-লোহাগাড়া ভিক্ষু সমিতির সভাপতি বিমুক্তি বারিধি ভদন্ত রত্নপ্রিয় মহাথেরো-এর সভাপতিত্বে ও বড়দুয়ারা বেনুবন বিহারের সম্মানিত অধ্যক্ষ এস. শীলমিত্র ভিক্ষুর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ৪নং সুয়ালক ইউনিয়ন পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান উক্যনু মার্মা। প্রধান জ্ঞাতি ছিলেন, বাবু মংক্য চিং মরমা, ট্রাস্টি, বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট, ধর্মমন্ত্রনালয়, বান্দরবান শাখা। বিশেষ অতিথি ছিলেন, ত্রিপিটক রিসার্চ সোসাইটির সভাপতি, বাবু উজ্জ্বল বড়ুয়া বাসু।আশির্বাদক, মহাথেরো, অধক্ষ্য,উত্তর পুরানগড় সংঘশ্রী বিহার।

শুভ কঠিন চীবর দানোৎসবে ধর্মসভায় পূর্ণার্থীদের উদ্দেশ্যে প্রধান ধর্মদেশক হিসাবে ধর্মাপোদেশ দেন চন্দনাইশ ভিক্ষু পরিষদ এম, এ, প্রাক্তন মহাসচিব ভদন্ত প্রজ্ঞানন্দ মহাথেরো। বিশেষ ধর্মদেশক, আমতলী বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত বিনয়তিষ্য মহাথেরো, শীলঘাটা পরিনির্বাণ বিহারের উপধ্যক্ষ ভদন্ত দীপানন্দ থেরো।
ধর্মসভায় স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন, অত্র প্রতিষ্ঠানের সহকারী বাবু অতীশ বড়ুয়া এবং শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন প্রান্তিলেক এর কারবারি বাবু অংলাই ম্রো।
অনুষ্ঠানে পবিত্র মঙ্গলাচরণ করেন অত্র প্রতিষ্ঠানের ভদন্ত সৌরপানন্দ ভিক্ষু।

ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মধ্যে ছিলো ভোরে পরিত্রাণ পাঠ, পুষ্পপূজা ও ভিক্ষুসংঘের প্রাতঃরাশ, জাতীয় পতাকা ও ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন, বুদ্ধপূজা, শীলগ্রহণ, সংঘদান ও ভিক্ষু সংঘের ধর্ম দেশনা, অনুত্তর পূণ্যক্ষেত্র ভিক্ষু সংঘকে পিন্ডদান। উদ্বোধনী সংগীত, দানোত্তম কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠান, পূজনীয় ভিক্ষু সংঘের ধর্মোপদেশ ও সন্ধ্যায় ফানুস বাতি উত্তোলন। ধর্মসভা ও পঞ্চশীল গ্রহণের পর চীবর দানের মাধ্যমে ‘মুক্তির অহিংসা বাণী ছড়িয়ে যাক মানুষে মানুষে এবং সামনের দিনগুলোতে শান্তি ফিরে আসুক ধর্মপ্রাণ বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের’ এমন প্রার্থনার মধ্য দিয়ে চীবর দানের সমাপ্তি ঘটে।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বর্তমান বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন অস্প্রদায়িক নেত্রী, তার দক্ষ নেতৃত্বে বর্তমানে বাংলাদেশে সংখ্যা লুঘুরা সবচেয়ে নিরাপদ এবং সংখ্যা লুগুদের ধর্মীয় উপাসনালয় নির্মাণে অনুদান দিয়ে যাচ্ছে। মহামতি বুদ্ধের প্রজ্ঞাদীপ্ত শিক্ষা ‘বর্ষাবাস তথা বর্ষাব্রত’ পালনের সমাপনী অনুষ্ঠান শুভ প্রবারণা পূর্ণিমা এবং দানোত্তম কঠিন চীবর দান উৎসব হলো বৌদ্ধদের অতি পবিত্র ও মাহাত্ম্যপূর্ণ ধর্মীয় অনুষ্ঠান। সম্প্রতির বান্দরবানের পাহাড়ি অঞ্চলের লোকজন বৌদ্ধ ধর্ম সম্পর্ক জানবে এবং নিঃস্বার্থ ভাবে এই বিহারকে একটি পরিপূর্ণ ধর্মশালা বানাবো। এ বিহার থেকে অনেক ভিক্ষুক বের হবে যারা পাড়ায় ও মহল্লা সহ বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে বৌদ্ধ ধর্ম প্রচার করবে।

তারা আরও বলেন, এ পূত-পবিত্র অনুষ্ঠান-উৎসবের মধ্য দিয়ে বৌদ্ধরা তথাগত গৌতম বুদ্ধের পরম কল্যাণময় শিক্ষা চর্চার ব্রত হয়। হিংসা ক্রোধ ও মোহের বদলে প্রেম দয়া ও ক্ষমায় মানুষের কল্যাণে তপস্যা ভিক্ষুদের। বৌদ্ধ ভিক্ষুদের পরিধেয় বস্ত্রকে বলা হয় চীবর। তাই এ বৌদ্ধ সন্ন্যাসীদের পরিধেয় বস্ত্রের অভাব দুর করতেই কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠান। তাই বৌদ্ধদের কাছে প্রবারণা পূর্ণিমা ও কঠিন চীবর দান অত্যন্ত গুরুত্ববহ পুণ্যা অনুষ্ঠান। ধর্মবর্ণ নির্বিশেষে এই বৌদ্ধ বিহার প্রতিষ্ঠা লগ্নে থেকে যেভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছে আগামীতেও সে ভাবে করে যাওয়ার সমাজের বিত্তশালীদের বৌদ্ধ বিহারে সহযোগিতা কামনা করেছেন।

এসময় সংবর্ধিত অতিথি ছিলেন, ভদন্ত জ্যোতিনন্দ ভিক্ষু (থাইল্যান্ড)।ও বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, দানশীল ব্যাক্তিত্ব বাবু রাজু বড়ুয়া সহ অনুষ্ঠানে শত শত বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী নারী-পুরুষ অংশগ্রহণ করেন।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © 2017 chatgaiyakhobor.Com