1. Eskander211@gmail.com : MEskander :
  2. rashed.2009.ctg@gmail.com : চাটগাঁইয়া খবর : চাটগাঁইয়া খবর
বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৬:৫৯ অপরাহ্ন

ফটিকছড়ির শাহনগর স্কুল ও কলেজ এর অধ্যক্ষের মৃত্যু নিয়ে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন ও ভিক্ষোভ, ১০ দফা দাবীতে স্বারক লিপি প্রদান

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২ মে, ২০২৩
  • ১৯৫ Time View

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি :

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার  শাহনগর স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আলমের স্টোক জনিত মৃত্যু নিয়ে মানববন্ধন ও ভিক্ষোভ করেছে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ও এলাকাবাসী। গতকাল ২ মে বিদ্যালয়ের ৯৪ ব্যাচ হতে ২০২২ ব্যাচের প্রাক্তন ছাত্র- ছাত্রীদের পক্ষ থেকে ১০ দফা দাবীতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: সাব্বির রাহমান সানির নিকট স্বারক লিপি দেয়া হয়েছে। গত ২৯ এপ্রিল শনিবার দুপুরে শিক্ষার্থীদের ব্যানারে অনুষ্টিত  মানব বন্ধনে বিদ্যালয়ের শতশত শিক্ষার্থী ছাড়াও এলাকার সাধারণ মানুষ অংশগ্রহণ করেন। বিদ্যালয় ও কলেজের সুনাম সমুন্নত রাখতে  ১ মে ১০ দফা দাবীতে এক সমাবেশ সাবেক শিক্ষক নুর হোসেনের সভাপতিত্বে ও কামরুল হাসানের সঞ্চালনায় অনুষ্টিত হয়। সমাবেশে বিদ্যালয় প্রতিষ্টাতা সদস্য, পর্ষদ সদস্য ও স্থানীয়রা  বক্তব্য রাখেন। পৃথক সমাবেশ  ও মানব বন্ধনে বক্তারা প্রধান শিক্ষকের অকাল মৃত্যুতে  সভাপতি রাকিব বিন তৌহিদ ও স্থানীয় বাসিন্দা ঠিকাদার  শহীদুল্লাহকে দায়ী করেন।

প্রতিষ্টান প্রধান জাহাঙ্গীর আলম একজন নম্র ভদ্র মানুষ আখ্যায়িত করে বক্তারা বিদ্যালয়  পরিচালনা পর্ষদ   সভাপতি রাকিব ও শহীদুল্লার মানসিক চাপ সহ্য করতে না পেরে  অধ্যক্ষ্য  স্টোক করে মৃত্যু বরণ করেছে বলে উল্লেখ করেন। তারা  এ ঘটনার  জন্য  প্রশাসনের নিকট সুষ্টু তদন্ত দাবী করেন। এদিকে অধ্যক্ষের সাথে বিদ্যালয়ের সভাপতির উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের  একটি অডিও  এবং  এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানে অতিথি শহীদুল্লাহর  বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়ে। এরপর  থেকে শিক্ষার্থীরা ক্ষোভে ফেটে পড়ে। এ বিষয়ে সভাপতি রাকিব বিন তৌহিদের বক্তব্য জানতে তার মুঠো ফোনে কল দেয়া হলেও  তিনি ফোন রিসিভ করেননি। অপর অভিযুক্ত শহীদুল্লাহ তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, প্রধান শিক্ষক সেদিন অনুষ্ঠান শেষ করে হাসিমুখে স্বাভাবিক ভাবে চলে গেছেন।

পরে তার  স্বাভাবিক  মৃত্যু  নিয়ে একটি মহল ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করে আমাদের ঘায়েল করতে উঠে পড়ে লেগেছে বলে দাবী করেন তিনি। এলাকাবাসী এর জবাব অচিরেই দেবে বলে জানান শহীদুল্লাহ। জানতে চাইলে লেলাং ইউপি চেয়ারম্যান সরোয়ার উদ্দিন শাহীন বলেন সেদিনের অনুষ্টানে আমিও আমন্ত্রিত ছিলাম। উপজেলা পরিষদে সমন্বয় সভা থাকার কারনে যেতে পারিনি। পরে অধ্যক্ষের অসুস্থতার খবর পেয়ে নাজিরহাটস্থ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ছুটে যাই। সেখানে ডাক্তারের সাথে কথা বলে দ্রুত উন্নত চিকিৎসার জন্য শহরে পাঠিয়ে দিই। পরদিন মৃত্যু বরণ করেন। যা মেনে নিতে পারছিনা। স্কুলে কার সাথে অধ্যক্ষের কী হয়েছে জানেন না উল্লেখ করে চেয়ারম্যান আরো বলেন তবে অধ্যক্ষ্য মহোদয় অভিজ্ঞতায় কিছুটা পিছিয়ে  থাকলেও  আপাদমস্তক ভাল মানুষ ছিলেন। উল্লেখ্য, ২৭ এপ্রিল বিকালে  স্কুল থেকে চট্টগ্রাম শহরে  যাওয়ার পথে নাজিরহাট পৌরসভার ঝংকার এলাকায় ঘুরে পড়ে যান প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম। পথচারীরা এগিয়ে তৎক্ষনাৎ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। অবস্থা বেগতিক হলে নগরীর একটি বেসরকারী ক্লিনিকে নিয়ে যাওয়া হয়। পরদিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু করেন তিনি।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © 2017 chatgaiyakhobor.Com