1. Eskander211@gmail.com : MEskander :
  2. rashed.2009.ctg@gmail.com : চাটগাঁইয়া খবর : চাটগাঁইয়া খবর
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:১৬ পূর্বাহ্ন

ফটিকছড়ি পৌরসভা – কাঞ্চনগরের চেঙ্গা খালের ৯২ ফুট দৈর্ঘ্য ও ২৪ ফুট প্রস্থ সেতু অবশেষে চালুর অপেক্ষায়।

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ১৪ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ২৭ Time View

রফিকুল আলম।

ফটিকছড়ি পৌরসভার সাথে লাগোয়া কাঞ্চননগর ইউনিয়নের সাথে সংযোগের চেঙ্গা খালের সেতু বন্যায় ভেঙ্গে যাবার পর ১৮-১৯ অর্থ বছরে বন্যা ক্ষতিগ্রস্থ প্রকল্পের দুই কোটি ২২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ৯২ ফুট দৈর্ঘ্য ও ২৪ ফুট প্রস্থ সেতুর উপরের ঢালায় কাজ ১৩ জানুয়ারী শেষ হয়েছে। অবশেষে জনগণের ৫ বছর প্রতিক্ষার অবসানের মাধ্যমে চালুর অপেক্ষায়।
জানা যায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের মাধ্যমে এ সেতুর কাজ  শুরু হলে ও পরবর্তীতে করোনার কারনে কাজ পিছিয়ে পড়ে। আবার কাজ শুরু করলে নির্মাণ সামগ্রীর মূল্য বৃদ্ধির কারনে সেতুর কাজ ঝুলে থাকে। ফলে দু’ দিকের হাজারো মানুষ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় অতিবাহিত করে। আর উপজেলা পরিষদ ও বিবিরহাট বাজার মূখী মানুষের কয়েক গুণ টাকা বেশী দিয়ে বাধ্য হয়ে নানা কাজে যাতায়ত করতে হয়েছে।
কাঞ্চননগর ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান রশিদ উদ্দীন চৌধুরী কাতেব বলেন,২০১৭ সালে বন্যায় সেতুটি ভেঙ্গে যাবার বন্যা ক্ষতিগ্রস্থ প্রকল্প হতে (ফ্লাট প্রজেক্ট) অনেক আবেদন নিবেদনের মাধ্যমে সেতু ও উভয় দিকে সড়ক কার্পেটিং করার টেন্ডার পক্রিয়া যথাসময়ে সম্পন্ন হলে ও একটি সিন্ডিকেট কাজটি করার জন্য  আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে কাজ শুরু করে, আবার ফেলে চলে গেলে ও মহসিন এন্ড ব্রাদার্স কাজটি সম্পন্ন করায় সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানাই। আরো ধন্যবাদ জানাই আমার কাঞ্চননগরের সর্বস্তরের প্রিয়জনদের।
ফটিকছড়ি পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব ইসমাইল হোসেন বলেন, উক্ত সেতুর কারনে দু’দিকের মানুষ ৫ বছর ধরে যাতায়ত সমস্যায় ছিল। অবশেষে এ সেতু জনসাধারণ ও যানবাহনের জন্য উম্মুক্ত হলে মানুষের দীর্ঘ দিনের সমস্যার লাঘব হবে। পৌরসভার সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা পূর্বের মতো সহজ হবে।
অবশেষে উপজেলা প্রকৌশলী তন্ময় দাশ ফটিকছড়িতে যোগদানের পর এ সেতুর কাজ সম্পন্ন করতে প্রচেষ্টা চালিয়ে যায়। অবশেষে কাজের ঠিকাদার মহসিন এন্ড ব্রাদার্স ১৩ জানুয়ারী সেতুর উপরের ঢালায় সম্পন্ন করায় জনমনে আনন্দ দেখা দিয়েছে।
জানতে চাইলে উপজেলা প্রকৌশলী তন্ময় দাশ বলেন,উক্ত সেতুর কাজ বলতে গেলে প্রায় শেষ পর্যায়ে। এখন সেতুর দু’দিকে সামান্য সংযোগ সড়কের কাজ বাকী আছে। আশা করি ফেব্রুয়ারী মাসের শেষের দিকে সর্বসাধারণ ও যানবাহন চলাচল করতে পারবে।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © 2017 chatgaiyakhobor.Com