1. Eskander211@gmail.com : MEskander :
  2. rashed.2009.ctg@gmail.com : চাটগাঁইয়া খবর : চাটগাঁইয়া খবর
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৭:৩০ পূর্বাহ্ন

ফটিকছড়িতে ক্যামিকেল দিয়ে পাকাঁনো আনারসে সয়লাভ !

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ৭ এপ্রিল, ২০২৩
  • ৯১ Time View

রফিকুল আলম,ফটিকছড়ি :

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলায় সুন্দর গোলাকারের জন্য ফোরস কেয়ার ও ইবা ফোন নতুবা বাইফোন ক্যামিকেল দিয়ে পাকাঁনো আনারসে সয়লাভ হয়ে গেছে। সৌসুম না হলে ও রমজান মাসে ক্যামিকেল দিয়ে পাকাঁনো আনারস উপজেলার সর্বত্র বিক্রি হচ্ছে। মৌসুমে আনারসের দাম খুবই কম হওয়াতে উচ্চ দামে বিক্রির জন্য এ রমজান মাস বেঁছে নিয়ে মৌসুমী ব্যবসায়ী ও আনারস বাগান মালিকরা অধিক মুনাফার সুযোগ নিয়েছে। উপজেলায় ক্যামিকেল আনারস পরীক্ষার কোন ব্যবস্থা না থাকায় তাদের আরো সুবিধা হয়েছে। এসব আনারস খেয়ে পরিবারের সব বয়সী থেকে শিশুসহ নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে বেশী।

জানা যায়, উপজেলার কিছু পাহড়ী এলাকা ও পার্বত্য জেলার মানিকছড়ি,লক্ষীছড়ি,রামগড় উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় আনারসের বাগান রয়েছে। রমজান মাসে রোজাদারদের খুবই পছন্দ আনারস। তাই এ সুযোগে বাগান মালিক অপরিপক্ক এসব আনারস গাছে থাকা অবস্থায় গোলাকৃতি ও সুন্দরের জন্য ফোরস কেয়ার ও পাঁকানোর জন্য ইবা ফোন নতুবা বাই ফোন ক্যামিকেল ব্যবহার করে আনারসের পাকাঁনো রং আসার পর ছোট বড় সব আনারস বিক্রি করে দেয় বলে জানান পার্শ্ববর্তী মানিকছড়ি উপজেলা হতে এসব আনারস নিয়ে আসা নাম প্রকাশে অনিশ্চুক এক যুবক।
এদিকে মানুষ হাট-বাজার সহ যেখানে দেখা যায় সেখান হতে ক্যামিকেল দিয়ে পাঁকানো আনারস ক্রয় করে মানুষ খাওয়ার জন্য বাড়ীতে নিয়ে যাচ্ছে। আনারস পরিপক্ক হলে আনারসের উপরের ঝুঁটির প্রতিটি পাতা কমপক্ষে ৫/৬ ইঞ্চি লম্বা হবে। ক্রেতারা এ বিষয় চিন্তা না করে অপরিপক্কা ক্যামিকেল দিয়ে পাঁকানো আনারস খেয়ে সুস্থ জীবনকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাচ্ছে।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার ৬ এপ্রিল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: সাব্বির রাহমান সানি’র নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, আনারসের ক্যামিকেল পরীক্ষার উপজেলায় কোন ব্যবস্থা নেই। তিনি জেলায় যোগাযোগ করে ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান।
এবাপারে সচেতন মহল ফরমালিন পরীক্ষার মতো ক্ষতিকর ক্যামিকেল দিয়ে পাঁকানো আনারস পরীক্ষা করে বাগান মালিক ও মৌসুমী ব্যবসায়ীদের ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নিয়ে সাধারন মানুষের মাঝে ক্যামিকেলের অপকারিতা ও ক্ষতিকর দিক তুলে ধরে সচেতনতা সৃষ্টি করা প্রয়োজন বলে মত ব্যক্ত করেন।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © 2017 chatgaiyakhobor.Com