1. Eskander211@gmail.com : MEskander :
  2. rashed.2009.ctg@gmail.com : চাটগাঁইয়া খবর : চাটগাঁইয়া খবর
মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৫৫ অপরাহ্ন

মরার উপর খাড়ার ঘা

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১৭ আগস্ট, ২০২০
  • ১৫৮ Time View

এসএম রাশেদ

চন্দনাইশ উপজেলার দোহাজারী পৌরসভার ষ্টেশন রোডের ব্যস্ততম সড়কটিতে মরার উপর খাড়ার ঘায়ে পরিণত হয়েছে। একদিকে সড়কটিতে খানাখন্দকে ছোট-বড় অসংখ্য গর্ত সৃষ্টি হয়ে চলাচলে অযোগ্য হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে ষ্টেশন রোডের রেল বিটের পশ্চিম পাশ্বে রাতের আঁধারে এস্কেভেটর দিয়ে ওই রাস্তা খুঁড়ে তমা গ্রুপের ড্রেজার পাইপ নিয়ে গিয়ে সড়কটির আরো নাজুক অবস্থা সৃষ্টি করেছে। প্রশাসন দেখেও না দেখার ভান করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

সরেজমিন পরিদর্শনে জানা যায়, দক্ষিণ চট্টগ্রামের ব্যস্ততম দোহাজারী ষ্টেশন রোড সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন স্কুল,কলেজ, মাদ্রাসার শিক্ষার্থীসহ হাজার হাজার মানুষ ও যানবাহন এ সড়কটি দিয়ে চলাচল করছে। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে ওই সড়কের পাশে পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও সড়ক সংস্কার না থাকায় উক্ত সড়কটিতে গর্ত সৃষ্টি হয়ে চলাচলে নাজুক অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।

জামিজুরী এলাকার মোঃ শাহ্ আলম জানায়,দোহাজারী ষ্টেশন রোড দিয়ে দোহাজারী বাজারে আসতে পায়ে সেন্ডেল খুলে আসতে হয়। সাতবাড়ীয়া এলাকার আবদুল ছবুর জানান, দোহাজারী আসলে ষ্টেশন রোডে দিয়ে কিছুর জন্য যাওয়া হলেও হেঁটে যাওয়ার মত পরিস্থিতি নেই রিক্সা দিয়ে যেতে ও আসতে হয়। রিক্সা চালক শাহাজাহান বলেন, সড়কটি দিয়ে রিক্সা চালানোর সময় গর্ততে পড়ে রিক্সা অনেকবার ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। সিএনজি চালক জামাল বলেন, দোহাজারী ষ্টেশন রোড সড়কটি যেন পিতৃহীন সড়ক। ষ্টেশন রোডের নাম প্রকাশে কয়েকজন ব্যবসায়ী জানান, এই সড়ক দিয়ে একদিকে তমা গ্রæপের ভারী ভারী যানবাহন চলাচল করছে অন্যদিকে শঙ্খ নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের জন্য রাতের আধাঁরে সড়ক খুঁড়ে সড়কের চিরচেনা রূপ পরিবর্তন করছে।

গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় দেখা গেছে, বালু উত্তোলনের জন্য দোহাজারী ষ্টেশন রোড সড়কটি এস্কেভেটর দিয়ে রেলবিটের পশ্চিম পাশে সড়কের মাঝখানে খুঁড়ে বড় পাইপ নিয়ে যাচ্ছে এবং ওই পাইপটি শঙ্খ নদী থেকে প্রায় দীর্ঘ ৫০ গজের মত ১৫ ইঞ্চি পাইপ দিয়ে ষ্টেশন রোডের পানি নিস্কাশনের ড্রেনের ভিতর দিয়ে নিয়ে যাওয়ার ফলে পানি চলাচলের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হওয়ায় খাঁন প্লাজা থেকে রেলষ্টেশন পর্যন্ত সামন্য বৃষ্টিতে হাঁটু পরিমাণ পানি জমে যায়।

অন্যদিকে শঙ্খ নদী রেলওয়ে ব্রীজ এলাকা থেকে বালু উত্তোলনের ফলে নদীর উভয় পাশের সরকারের কোটি কোটি টাকা ব্যায়ে বেরিবাঁধ বির্ধস্ত হওয়ার উপক্রম হয়েছে। সড়ক খুঁড়ার সময় তমা গ্রæপের নিয়োজিত বালু উত্তোলনকারী ড্রেজার মেশিনের মালিককে সড়ক খুঁড়ে এবং ড্রেনের মধ্যে দিয়ে এভাবে ড্রেজারের পাইপ নিয়ে যাচ্ছেন এখানে এলজিডি চন্দনাইশের কোন অনুমোদন আছে কিনা জানতে চাইলে তখন তিনি কিছু বলতে রাজী না থাকলেও তাদের কাছে চাকুরী করে স্থানীয় একজন বলেন,উর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে তমা গ্রæপ সড়কটি খুঁড়ে পাইপ নিয়ে যাচ্ছে।


এব্যাপারে চন্দনাইশ উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিডি) রেজাউন নবী জানান, দোহাজারী ষ্টেশন রোডটি খুঁড়ে পাইপ নেওয়ার একতিয়ার কারো নেই। আর এ ব্যাপারে কোন অনুমোদন বা অনুমতি কেউ নেয়নি। সুতরাং জনগণের ক্ষতি করে কেউ কোন কাজ করলে তাদেরকে কৈপিয়ত দিতে হবে। তিনি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © 2017 chatgaiyakhobor.Com