1. Eskander211@gmail.com : MEskander :
  2. rashed.2009.ctg@gmail.com : চাটগাঁইয়া খবর : চাটগাঁইয়া খবর
মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০২:১০ পূর্বাহ্ন

রাউজানের পূর্বগুজরায় মানব সেবা উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত আ’লীগ নেতা শেখ মজিবুর রহমান

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ০ Time View

প্রদীপ শীল,

বাপ-দাদার মত মর্যাদা নিয়ে মানব কল্যাণে কাজ করতে চাই রাউজান উপজেলার পূর্ব গুজরা ইউনিয়নের শেখ মজিবুর রহমান। ছাত্রজীবনে প্রগতিশীল ধারার বড় হওয়া ‘মুজিব’ কলেজ রাজনীতি করেন শিক্ষা, শান্তি ও প্রগতির ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের। বর্তমানে রাউজান উপজেলার পূর্বগুজরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কোষাধ্যাক্ষ হিসাবে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করছেন।

এছাড়া তিনি মধ্যম আধাঁর মানিক উচ্চ বিদ্যালয়ের দাতা সদস্য, আধাঁর মানিক বায়তুল সালাত কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা কো-অপারেটিভ এসোসিয়েশন এর সহ-সম্পাদক ও রাউজান কো-অপারেটিভ ইউনিয়ন লিমিটেডের সভাপতি’র দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি একজন মানবতাবাদী ও পর-উপকারী নেতা। তার চিন্তা চেতনায় যুব সমাজকে সু-সংগঠিত করে পূর্বগুজারা ইউনিয়নকে একটি আধুনিক ও প্রগতিশীল ধারায় প্রস্তুত করেছেন। মাদক, জঙ্গী, সন্ত্রাস ও ইভটিজিং প্রতিরোধে এই যুব সমাজ তার নেতৃত্বে কাজ করছেন।

রাউজানের সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীর স্বপ্ন পিংক, গ্রীণ ও উন্নয়নে আধুনিক রাউজান বাস্তবায়নেও তিনি কাজ করছেন। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কোষাধ্যাক্ষ শেখ মজিবুর রহমান এক স্বাক্ষাত কালে বলেন, রাউজানের সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী ও সাংসদপুত্র মুক্ত চিন্তার অধিকারী ফারাজ করিম চৌধুরী একটি সুন্দর আগামীর জন্য কাজ করছেন। রাউজানে কি শুধু উন্নয়ন হয়েছেন, রাউজানে একটি শুদ্ধ ও শুদ্ধানোর জন্য কাজ হচ্ছে ফজলে করিম ও ফারাজ ররিম চৌধুরীর নেতৃত্বে। যার কারণে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ এখন জিরো অবস্থানে। অতীতে সন্ত্রাসের জনপদকে সাংসদ ফজলে করিম চৌধুরী শান্তির জনপদে পরিনত করেছেন। রাউজানের মানুষ রাতে দরজা খুলে ঘুমাই। চুরি নেই, ডাকাতি নেই, নেই কোন অপকর্ম। শান্তির সুভাষিত মহিমায় দেশে রাউজান উপজেলা শান্তির অগ্রদূত।

সবকিছু সম্ভব হয়েছে সাংসদের যোগ্য নেতৃত্বের কারণে। সাংসদের অনুপ্রেরণায় পূর্বগুজরায় আমরা কাজ করছি সুন্দর সমাজ বি-নির্মাণে। যেখানে থাকবেনা সাম্প্রদায়িকতা। যেখানে থাকবে সুশীতল ও সুনির্মল শুদ্ধচার। হিনতা, গোরামী, অসত্য, অসুন্দর রোখে দিয়ে সভ্যতার ইতিহাস রচনা করতে চাই পূর্বগুজরাকে। তিনি বলেন, হানাহানি, দাঙ্গা মুক্ত ও বদলে দেয়ার মন মানুষিকতার নিয়ে রাউজানের সাংসদের নেতৃত্বে এগিয়ে যেতে চাই অসাধ্য সাধন করতে। উল্লেখ্য, শেখ মজিবুর রহমানের দাদা ছিলেন ফয়েজ আলী মাতব্বর। তিনি স্বাধীকার ও ন্যায় পরায় একজন সমাজ সংস্কারক। কাজ করেছেন দেশমাতৃকার জন্য। শেখ মজিবুর রহমানের পিতা মরহুম ফরিদ আহম্মদ ছিলেন একজন বঙ্গবন্ধুর আদর্শগত সৈনিক। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সোনার বাংলা নির্মাণের অগ্রজন্মা। রাউজানের সাংসদের প্রিয় ব্যাক্তিত্ব।

সাংসদের অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে কঠোর পরিশ্রমীর ভূমিকায় ছিল। মরহুম ফরিদ আহম্মদ পূর্বগুজরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের দীর্ঘদিন ধরে সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন সফলতার সাথে। এছাড়া তিনি জেলা আওয়ামীলীগ ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য হিসাবে কাজ করেন। তিনি দলের জন্য অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছিল। জেল, জুলুম, অত্যাচার মাথায় নিয়ে আওয়ামীলীগের জন্য আজীবন কাজ করেছেন মৃত্যুর আগপর্যন্ত। নীতি আদর্শ থেকে কোন দিন পিছ পা হয়নি। এমন যোগ্য ও ত্যাগী নেতার সুযোগ্য সন্তান শেখ মজিবুর রহমান স্বপ্ন দেখেন একটি আদর্শ পূর্বগুজরা ইউনিয়ন। যেখানে মানুষ পাবে ন্যায় বিচার। জনগন পারে তার যোগ্য সম্মান। বাপ-দাদার পথে নিজের জীবন উৎসর্গ করতে চাই তরুণ প্রজন্মের শেখ মজিবুর রহমান।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © 2017 chatgaiyakhobor.Com