1. Eskander211@gmail.com : MEskander :
  2. rashed.2009.ctg@gmail.com : চাটগাঁইয়া খবর : চাটগাঁইয়া খবর
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১১:৪৮ অপরাহ্ন

রাউজানে ইটভাটায় চাঁদাবাজি করতে গিয়ে চার ভূয়া সাংবাদিকসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১৮৬ Time View

প্রদীপ শীল, রাউজানঃ

চট্টগ্রামের রাউজানে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে ৫জনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল ২৮ডিসেম্বর সোমবার বিকেল ৩টায় রাউজান পৌরসভার ৯নম্বর ওয়ার্ডের চারাবটতল এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা ময়মনসিংহ জেলার শাপলা থানার খোকন আলীর ছেলে আল আমিন আহমেদ (৩৫), একই জেলার গফরগাঁও থানার সিরাজুল ইসলামের মেয়ে আরিফা আফরোজ (২০), একই জেলার বালুকা থানার সৈয়দ আবদুর জব্বারের মেয়ে সৈয়দা জবা (২২), একই এলাকার মাছুম হাসান (৩৫), গাড়ি চালক কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট উপজেলার হাশেম মজুমদারের ছেরে ইলিয়াছ মজুমদার (৫৫)।

রাউজান থানা পুলিশ জানায়, মাইক্রো (নোহা) নিয়ে গাড়ির সামনে দৈনিক বর্তমান কথা ও দেশটিভি বাংলার স্টিকার লাগিয়ে, মুঠোফেনের পেছনে নিউজ বাংলা টিভি এবং গলায় জবস টিভি ও দেশকাল পত্রিকার কার্ড ঝুলিয়ে তারা একাধিক ইটভাটাকায় গিয়ে মোটা অংকের চাঁদাবাজি করে। সর্বশেষ রাউজান পৌরসভার ৯নম্বরও ওয়ার্ডের একটি ইটভাটায় চাঁদা দাবি করলে তারা নগদ ২ হাজার টাকা ও বিকাশে ১০ হাজার টাকা প্রদান করে পুলিশে খবর দিয়ে আটকে রাখে। আটকের পর পুলিশের কাছে তারা স্বীকারে করে তারা প্রকৃত সাংবাদিক নয়। দৈনিক বর্তমান কথা পত্রিকার সাংবাদিক নিজেকে ৮ম শ্রেণী পাশ দাবি করলেও পত্রিকার নাম লিখতে বললে তিনি লিখেন ‘বরর্মাান কথা’। গাড়ি চালক স্বীকার করেন, তাকে চট্টগ্রাম নগরী থেকে ভাড়া করে হাটহাজারী আসার পর গাড়ির সামনে ও পেছনে স্টীকার লাগানো হয়।

আটক দুই নারী সাংবাদিক স্বীকার করেন তাদেরকে কক্সবাজার নিয়ে যাওয়ার প্রভোবনে আনা হলেও রাউজানে নিয়ে আসা হয়। এই প্রসঙ্গে সহকারী পুলিশ সুপার (রাউজান-রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) আনোয়ার হোসেন শামীম বলেন, সাংবাদিক পরিচয়ে চার কথিত সাংবাদিকসহ ৫জনকে আটক করা হয়েছে। চাঁদাবাজির ঘটনায় ব্যবহৃত মাইক্রোটি (চট্টমেট্রা-চ-১১-৪৪৩৫) জব্দ করা হয়েছে।

তাদের কাছ থেকে বিভিন্ন টিভি ও পত্রিকার পরিচয়পত্র ও বিজিটিং কার্ড জব্দ করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে রাউজান থানায় মামলা রুজুর পক্রিয়া চলছে। রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, তারা একাধিক ইটভাটা থেকে মোটা অংকের চাঁদাবাজি করেছে। আমরা দুটি ইটভাটা থেকে ২২ হাজার টাকা চাঁদাবাজির প্রমাণ পেয়েছি। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ( সন্ধ্যা ৭টা ৫৫ মিনিট) এই বিষয়ে মামলা হয়নি। মামলা পক্রিধীন আছে বলে পুলিশ জানিয়েছেন।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © 2017 chatgaiyakhobor.Com