1. Eskander211@gmail.com : MEskander :
  2. rashed.2009.ctg@gmail.com : চাটগাঁইয়া খবর : চাটগাঁইয়া খবর
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৭:৪৩ পূর্বাহ্ন

লাতি দিয়ে মসজিদের মেহরাব ভাংচুরের ঘটনায় জরিত এক ব্যাক্তি পুলিশের হাতে আটক

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০
  • ২১১ Time View

প্রদীপ শীল, রাউজানঃ


রাউজানের উরকিচর হারপাড়া এলাকায় আল-ফালাহ্-মহিলা মাদ্রাসা জামে মসজিদের মেহরাব ভেঙ্গে দেয়ার অভিযোগে মোহাম্মদ মাহামুদ (৫০) নামে এক ব্যাক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। ১৫ জুলাই সকালে উরকিচর হারপাড়া এলাকা থেকে গোপন সংবাদের ভিক্তিতে রাউজান থানা পুলিশ তাকে আটক করতে সক্ষম হয়। আটক মাহামুদ উপজেলার উরকিচর ইউনিয়নের হারপাড়া গ্রামের মিয়া বাড়ির মৃত আবদুল লতিফের পুত্র। লাতি মেরে মসজিদের মেহরাব ভাংচুর ও আটক জরিত প্রসঙ্গে রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কেপায়েত উল্লাহ্ পিপিএম বলেন লাতি মেরে মসজিদের মেহরাব ভাঙ্গার অপরাধে মাহামুদ নামে একজনকে আটক করেছি। আরো একজনকে আটকে চেষ্টা চলছে ।

আটককৃতকে আদালতে সোপর্দ করে রিমান্ডের আবেদন করা হবে। আমরা চেষ্টা করছি মেহারাব ভাংচুরের পিছনে আরো কারা জরিত রয়েছে। তাদের সবাইকে আইনের আওলতায় আনা হবে।

উল্লেখ্য যে, ১১ জুলাই মসজিদের মেহরাব ভাংচুরের ঘটনায় মোহাম্মদ মাহামুদ ও তৌসিফ আনোয়ারসহ অজ্ঞাত ১০/১২জনকে আসামী করে রাউজান থানায় মামলা করেন আল-ফালাহ্-মহিলা মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এবং জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা ইউনুছ ফেরদৌস। ১৪ জুলাই এই ঘটনার সূত্র ধরে সামাজিক যোগাযোগব্যবস্থায় ব্যাপক ভাইরাল হলে, পুলিশ প্রশাসন ও রাজনৈতিক মহলের দৃষ্টিগোচর হয়।ঐদিন রাতে রাউজান থানার সুযোগ্য ওসি কেপায়েত উল্লাহ পিপিএম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বিক্ষুব্ধ মুসল্লিদের আশ্বাস দেন, জড়িতদের গ্রেফতার করা হবে। এসময় তিনি মসজিদের উন্নয়নে নগদ ১০ হাজার টাকাও প্রদান করেন। এছাড়া রাউজানের সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী ও উপজেলা চেয়ারম্যান এএকেএম এহেসানুল হায়দর বাবুল পুলিশকে মেহরাব ভাঙ্গায় জরিতদের দ্রুত গ্রেফতারের নির্দেশ দেন। রাউজান থানার ওসি আল্লাহ্‌ ঘর মসজিদে লাতি মেরে মেহরাব ভাঙ্গার মতো জগন্য কাজে জররিতদের আটক করতে মাঠে নামে। শেষ পর্যন্ত প্রকৃত আসামী মাহামুদকে আটক করতে সক্ষম হয় পুলিশ।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © 2017 chatgaiyakhobor.Com