1. Eskander211@gmail.com : MEskander :
  2. rashed.2009.ctg@gmail.com : চাটগাঁইয়া খবর : চাটগাঁইয়া খবর
মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০১:২৪ অপরাহ্ন

লোহাগাড়ার উত্তর কলাউজানে চলছে জমজমাট জুয়ার আসর

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১৭ আগস্ট, ২০২০
  • ১৪৩ Time View

খোকন সুশীল,লোহাগাড়া:

লোহাগাড়া উপজেলার উত্তর কলাউজান রসুলাবাদপাড়া এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে চলছে জমজমাট জুয়ার অাসর। স্থানীয় মৃত আবুল হোসেনের ছেলে বাদশা মিয়ার নেতৃত্বে এ জুয়ার আসর চলছে বলে জানান স্থানীয়রা।

সরেজমিন পরিদর্শনে গিয়ে দেখা যায় উপজেলার কলাউজান রসুলাবাদপাড়া জামে মসজিদের পূর্বপার্শ্বে টংকাবতী খালের বালুর চরে ১০/১৫টি জুয়ার আসর বসেছে। প্রতিবেদককে দেখে জুয়ার আসর ভেঙ্গে পালিয়ে যায় জুয়ারিরা। স্থানীয়রা বলছেন, উত্তর কলাউজান রসূলাবাদপাড়া এলাকায় জুয়ার আসরকে কেন্দ্র করে পরিবারে অশান্তি নেমে এসেছে। অনেকের স্ত্রী-সন্তান অসমাজিক কার্যকলাপে জড়িত হচ্ছে। প্রায় ২ মাস ধরে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৪টা পর্যন্ত বিভিন্ন এলাকা থেকে জোয়ারিরা এসে জোয়ার আসরে জুয়া খেলতে বসে।

উত্তর কলাউজান রসুলাবাদপাড়া এলাকার প্রায় পরিবারের লোকজন এই জুয়া খেলার সাথে জড়িত বলে অভিযোগ উঠেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি বলেন, বান্দরবান,লামার কেয়াজুরপাড়া,সরই, আজিজনগর,চকরিয়া,সাতকানিয়া,লোহাগাড়া উপজেলার কলাউজান,চরম্বা,পদুয়া, লোহাগাড়া সদর থেকে শুরু করে উপজেলার বিভিন্ন এলাকার লোকজন মোটরসাইকেল যোগে এসে নিয়মিত জুয়া খেলে। প্রতিদিন ২০/৩০ লাখ টাকার জুয়া খেলা হয় বলে স্থানীয়রা জানান । এদিকে টাকার লোভ সামলাতে না পেরে স্থানীয় স্বল্প আয়ের মানুষ গুলো জুয়া খেলে সর্বস্ব হারিয়ে পথে বসেছে। এছাড়াও পরিবারের ভরন পোষণ তথা পারিবারিক খরচ মেটাতে না পেরে অনেকে স্ত্রীকে মারধর করে বলেও অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয়রা আরো বলেন, উত্তরকলাউজান রাবারড্যাম নামক স্টেশন থেকে জুয়া খেলার আসর পর্যন্ত বেতনদিয়ে লোক দাঁড়িয়ে রেখে পাহাড়ার মাধ্যমে জুয়া খেলা পরিচালিত হয়। স্থানীয় ইউপি সদস্য ও চৌকিদারকে টাকা দিয়ে ম্যানেজ করে এ জুয়ার আসর পরিচালনা করছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ তুলেন। জানতে চাইলে চৌকিদার আব্দুল খালেক টাকা নেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, আমি জুয়া খেলা বন্ধ করার জন্য বার বার নিষেধ করেছি এবং পুলিশকেও জানিয়েছি। স্থা

নীয় ইউপি সদস্য মো: জামাল উদ্দিন বলেন, জুয়া খেলা বন্ধ করার জন্য স্থানীয়দের বার বার সহযোগিতা চেয়ে ব্যর্থ হয়েছি। পরে থানা পুলিশকে বিষয়টি অবগত করেছি।

এ ব্যাপারে লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) মো. জাকের হোসাইন মাহমুদ বলেন, বিষয়টি কয়েকদিন আগে জেনেছি। জুয়া খেলার সাথে জড়িতদের আটকের জোর চেষ্টা চলতেছে।



Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © 2017 chatgaiyakhobor.Com